সামাজিক সংগঠক হিসাবে লিঙ্গ

📜 প্রতিটি সমাজেই দেখা যায় আর্থিক এবং ক্ষমতার দিক থেকে শক্তিশালী সমাজেরই একটি অংশ সামাজিক মূল্যবােধ , আদর্শ এবং বিশ্বাস সৃষ্টি করে যা সমাজের গতিশীলতার উপর প্রভাব বিস্তার করে । এই মূল্যবোেধ , আদর্শ এবং বিশ্বাস সামাজিক প্রতিষ্ঠানের ( যেমন কর্মথল , মাধ্যম , শিক্ষা , ধর্ম ইত্যাদি ) মাধ্যমে বিস্তার লাভ করে এবং শক্তিশালী হয় । এইসব মূল্যবােধ , আদর্শ এবং বিশ্বাস সামাজিক মর্যাদা লাভে সাহায্য করে । পাশাপাশি এগুলি ব্যক্তিত্ব এবং স্ত্রী – পুরুষের ভূমিকা গঠনে প্রভাব বিস্তার করে ।



📜 Urges এবং Crawford ( 1996 ) বলেন , যৌন ( Sex ) এবং লিঙ্গ শব্দ ব্যবহারে আমাদের । সতর্ক হওয়া উচিত । তিনি যৌন বা Sex বলতে বুঝিয়েছেন জৈবিক অর্থে পুরুষ বা নারী । ( উদাহরণস্বরূপ যৌন ক্রোমােজম যা পরিবর্তন সাপেক্ষ নয় ) এবং লিঙ্গ বা Gender হল মনস্তাত্ত্বিক দৃষ্টিভঙ্গিতে পুরুষ বা নারী ( উদাহরণস্বরূপ লিঙ্গ ভূমিকার পরিবর্তন ) । এই পার্থক সামাজিক সংগঠক হিসাবে লিঙ্গের ভূমিকা অনুধাবনে সাহায্য করে ।

📜 স্ত্রী এবং পুরুষের ভূমিকা অনেকাংশে নির্ধারিত হয় সমাজের দ্বারা । লিঙ্গভেদের কারণেই সমাজ তাদের ভিন্ন চোখে দেখে । শ্রম বণ্টন , ক্ষমতা বণ্টন , অধিকার ও দায়িত্বের ক্ষেত্রে সমাজ স্ত্রী ও পুরুষের মধ্যে পার্থক্য তৈরি করেছে । এই পার্থক্যের উৎস ‘ জৈবিক হলেও সমাজ এবং তার সংস্থাগুলির ( যেমন — পরিবার , সহপাঠীর দল , গণমাধ্যম ইত্যাদির ) ভূমিকা বিশেষ গুরুত্বপূর্ণ । বিভিন্ন সমীক্ষা থেকে প্রমাণ পাওয়া গেছে যে , পরিবারের পিতা – মাতা , পুত্র কন্যাকে ভিন্ন চোখে দেখা ।

প্রাপ্তবয়স্ক ছেলে ও মেয়েদের জন্য ভিন্ন ধরনের খেলার উপকরণ সরবরাহ করে । দুবছরের শেষের দিকে পিতা – মাতা পুত্র ও কন্যার নিকট থেকে বিভিন্ন ধরনের আচরণ প্রত্যাশা করে এবং আচরণ যদি ভিন্ন ধরনের হয় অর্থাৎ পুত্রের নিকট প্রত্যাশিত আচরণ যদি কন্যা করে এবং কন্যার আচরণ যদি পুত্র করে সেক্ষেত্রে পিতা মাতাদের দৃষ্টিভঙ্গি নেতিবাচক হয় । সমবয়সিদের মধ্যেও লিঙ্গগত পার্থক্যের ভূমিকা দেখা যায় । সমীক্ষায় দেখা গেছে , 3 বছর বয়সি শিশুদের মধ্যে লিঙ্গভিত্তিক খেলাধুলার প্রবণতা দেখা যায় । 4 বছর বয়সি শিশুরা তাদের সমলিঙ্গ এবং বিপরীত লিঙ্গ শিশুদের সঙ্গে খেলাধুলার অনুপাত 13 : 1। 6 বৎসর বয়সে এর অনুপাত হয় 11 : 1। পরিবার এবং লিঙ্গগত পার্থক্য গড়ে তুলতে সমবয়সিদের ন্যায় গণমাধ্যমের ভূমিকা বিশেষ তাৎপর্যপূর্ণ ।



Related posts:

পদার্থ কাকে বলে ? পদার্থ ও বস্তু কি এক ?
প্রশ্ন : মূল্যায়ন কাকে বলে ? মূল্যায়ন কয় প্রকার ও কী কী ? যে - কোনো একপ্রকার মূল্যায়নের বিবরণ দি...
একক পাঠ পরিকল্পনা কাকে বলে ? পাঠ পরিকল্পনার প্রয়োজনীয়তা লিখুন । এর সুবিধা লিখুন ।
শিক্ষা পরিকল্পনা কাকে বলে ? শিক্ষা পরিকল্পনার শ্রেণিবিভাগ করুন । যেকোনো একপ্রকার পরিকল্পনার বিবরণ দি...
ধারণা মানচিত্র কাকে বলে ? এর বৈশিষ্ট্য লিখুন । বাস্তবায়নের উপায় লিখুন । এর গুরুত্ব লিখুন ।
পাঠ একক বিশ্লেষণ কাকে বলে ? পাঠ একক বিশ্লেষণের স্তর বা ধাপগুলি লিখুন
অন্তর্ভুক্তিকরণে ( সমন্বিত শিখনে ) প্রদর্শিত শিল্পকলার কীভাবে প্রয়োগ করবেন
প্রদর্শিত শিল্পকলার লক্ষ্য , বৈশিষ্ট্য , গুরুত্ব ও বাস্তবায়নের কৌশল
প্রাথমিক স্তরে পাঠদানের ক্ষেত্রে নাটকের ব্যবহার
মূল্যবোধ শিক্ষায় বিদ্যালয় ও শিক্ষকের ভূমিকা
মূল্যবোধ || মূল্যবোধের বৈশিষ্ট্য || প্রাথমিক স্তরে মূল্যবোধের শিক্ষার গুরুত্ব
বিশেষ চাহিদাসম্পন্ন শিশুদের শিক্ষায় তথ্য ও সংযোগসাধন প্রযুক্তির ভূমিকা
সমন্বয়িত শিক্ষণে তথ্যপ্রযুক্তি ব্যবহারের সমস্যা ও সাফল্য
পাঠক্রম পরিব্যাপ্ত শিক্ষণবিজ্ঞানে তথ্য ও সংযোগসাধন প্রযুক্তির ব্যবহার
পাঠক্রম পরিব্যাপ্ত শিক্ষণবিজ্ঞানে তথ্য ও সংযোগসাধন প্রযুক্তির ব্যবহার
উদাহরণসহ প্রকল্প পদ্ধতির বিবরণ
পূর্বসূত্রজনিত শিখন ( Contextualization ) কাকে বলে ?
জ্ঞান , পাঠক্রম , পাঠ্যবই , শিক্ষার্থী ও শিক্ষণবিজ্ঞানের মধ্যের সম্পর্ক
অনুসন্ধান পদ্ধতি
জ্ঞান নির্মাণ কীভাবে হয় উদাহরণসহ আলোচনা

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

You cannot copy content of this page